রাজ্য

রামকৃষ্ণ মিশন হামলায় গ্রেফতার মূল অভিযুক্ত

উল্লেখ্য, গত ১৯ মে শালুগাড়ার রামকৃষ্ণ মিশনের জমি দখলের চেষ্টা করে জমি মাফিয়ারা। ঘটনা ঘিরে তোলপাড় হয় রাজ্য রাজনীতি। ৪ দিন পর ঘটনায় জড়িত কেজিএফ গ্যাং এর ৫ সদস্যকে গ্রেপ্তার করে ভক্তিনগর থানার পুলিশ। পরবর্তীতে আরও ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে শুক্রবার রাতে খোলাচাঁদ ফাপড়ি এলাকা থেকে গ্যাংয়ের মাস্টারমাইন্ড অলোক দাসকে গ্রেপ্তার করে ভক্তিনগর থানার পুলিশ। তবে শনিবার মূল অভিযুক্ত প্রদীপ রায়কে গ্রেপ্তারি তাদের বড় সাফল্য বলে দাবি করে পুলিশ।
রামকৃষ্ণ মিশন কাণ্ডের মূল অভিযুক্ত প্রদীপ রায়কে অবশেষে গ্রেপ্তার করল শিলিগুড়ির পুলিশ। শনিবার সন্ধ্যায় শিলিগুড়ি জংশন এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। ঘটনার পর থেকেই মূল অভিযুক্ত পলাতক ছিলেন। তার খোঁজে পুলিশ বিভিন্ন জায়গায় তদন্ত শুরু করে। অবশেষে এদিন তাকে গ্রেপ্তার করেন তদন্তকারীরার।

প্রদীপ রায়ের নামেই অভিযোগ দায়ের করেছিল রামকৃষ্ণ মিশন। এছাড়া শুক্রবার রাতে কেজিএফ গ্যাং এর মাস্টারমাইন্ড অলোক দাসকেও গ্রেপ্তার করেছে ভক্তিনগর থানার পুলিশ। এবিষয়ে শিলিগুড়ির পুলিশ কমিশনার সি সুধাকর বলেন, “আমরা প্রদীপ রায়কে গ্রেপ্তার করতে পেরেছি। আরও কেউ আছে কিনা সেবিষয়ে আমাদের তদন্ত চলছে।” প্রসঙ্গত ধৃত অলোক দাস প্রথমে রিকভারি এজেন্ট হিসেবে কাজ করত। পরবর্তীতে বেশ কয়েকজনকে নিয়ে শিলিগুড়িতে তৈরি করে কেজিএফ গ্যাং। এই গ্যাং তৈরি হতেই শিলিগুড়িতে একের পর এক অপরাধের ঘটনা ঘটতে শুরু করে। এই গ্যাংই মাথাব্যাথার কারণ হয়ে ওঠে পুলিশের।

Related Articles

Back to top button