জেলা

করোনা যুদ্ধে সামিল হল এগরা-২ ব্লকের বাথুয়াড়ী অঞ্চল যুব তৃণমূল কংগ্রেস।

প্রদীপ কুমার মাইতি,পূর্ব মেদিনীপুর ঃ নিজেদের শরীরের রক্ত দান করে করোনা যুদ্ধে সামিল হল এগরা-২ ব্লকের বাথুয়াড়ী অঞ্চল যুব তৃণমূল কংগ্রেস। মাস্ক বিলি দিয়ে শুরু। তারপর চাল, আলু বিতরণ। আর শুক্রবার রক্তদান শিবির। এভাবেই করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে অবতীর্ণ হল পূর্ব মেদিনীপুর জেলার এগরা-২ ব্লকের বাথুয়াড়ী অঞ্চল যুব তৃণমূল কংগ্রেস। সারা দেশে লকডাউন চলছে। ফলে জেলা জুড়ে তৈরী হয়েছে রক্তের সঙ্কট। তাই নিজেদের শরীরের রক্ত দান করে করোনা যুদ্ধে সামিল হলেন বাথুয়াড়ী অঞ্চল যুব তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা-কর্মীরা। এ দিন বাথুয়াড়ীতে আয়োজিত এই রক্তদান শিবিরে যুব তৃণমূল নেতা-কর্মী ও শুভাকাঙ্খী মিলিয়ে ১০ জন মহিলা সহ মোট ৩০ জন রক্ত দান করেন। রক্ত সংগ্রহ করে এগরা মহকুমা ব্লাড ব্যাঙ্ক।অঞ্চল যুব তৃণমূলের সম্পাদক অর্ধেন্দু সিংহ বলেন, “বিশ্বজুড়ে লাখ লাখ মানুষ আজ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছেন প্রতিদিন।জেলা জুড়ে তৈরী হয়েছে রক্ত সংকট। তাই নিজেদের শরীরের রক্ত দিয়ে আজ আমরা সামিল হয়েছি করোনা মোকাবিলায়।” এদিনের রক্তদান শিবিরে উপস্থিত ছিলেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদের সদস্য উত্তম বারিক, কাঁথি-৩ পঞ্চায়েত সমিতির সহ-সভাপতি বিকাশ চন্দ্র বেজ, বাথুয়াড়ী গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান লক্ষীরানী হাজরা, উপ-প্রধান সুজিত শী, ব্লকের কর্মাধ্যক্ষ অর্চনা মাইতি, দলের অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক ভীমচরণ হাজরা, অভিমন্নু মাইতি- সহ বহু বিশিষ্ট মানুষ। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই রক্তদান শিবির হয়। সারা বছর খেলা ও সংস্কৃতি চর্চায় নিয়োজিত বাথুয়াড়ী অঞ্চল যুব তৃণমূল কংগ্রেসের নেতৃত্ব করোনা মোকাবিলায় ইতিমধ্যে দুই হাজার মানুষকে মাস্ক ও এক হাজার মানুষকে চাল-আলু বিতরণ করেছে। খুব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া মানুষজনকে বাড়ির বাইরে না যাওয়ার অনুরোধ করেছেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদের সদস্য তথা বিশিষ্ট সমাজসেবী উত্তম বারিক।

Related Articles

Back to top button