জেলা

দুস্থ শিল্পীদের সংবর্ধনা ও খাদ্য দ্রব্য সাহায্য বর্ধমান আর্টিস্ট হেল্প ফোরামের বর্ধমান রবীন্দ্রভবনে

সংবাদদাতা: লক ডাউনে দুস্থ শিল্পীদের কথা কেউ ভাবে না , তাদের অনেকেরই বড় অভাব তাই দেখে তাদের ব্যাথায় বড় কষ্ট পেয়ে বর্ধমান আর্টিস্ট হেল্ফ ফোরামের উদ্দোগে ও তাদের সদস্য দের সকলের সহযোগিতায় বর্ধমান রবীন্দ্রনভবনে ১৫০ জন সংগীত শিল্পী ,বাদ্য যন্ত্র শিল্পী, বাউল লোক শিল্পী দের মঞ্চে আমন্ত্রণ করে , গোলাপফুল , মাক্স ও চাল , ডাল ,সরষেরতেল ,সবজ্জী ,আলু , পিঁয়াজ , মুড়ি ,আটা , সোয়াবিন বড়ি , কুমড়ো প্রভৃতি তুলে দিলেন সংস্থার পক্ষ থেকে শিল্পীদের হাতে । অনুষ্ঠানে বিশেষ অথিতি ছিলেন পৌরসভার বিশেষ বাক্তিত্ব খোকন দাস মহাশয় । এছাড়া মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন বর্ধমান আর্টিস্ট হেল্প ফোরামের সেক্রেটারি মুহাম্মদ নাজমুল ইসলাম ( চন্দন ) , প্রেসিডেন্ট কবির আহমেদ , ভাইস প্রেসিডেন্ট বিশ্বজিৎ পাল প্রমুখ বাক্তিত্ব। ওই মঞ্চে সংবর্ধনা দেওয়া হয় সংস্থার বিশিষ্ঠ বাক্তিত্ব দের এবং তার সঙ্গে নিঃস্বার্থ বিনাপারিশ্রমিকে রাজ্যের সমাজ সচেতনের সেরা লোক বাউল শিল্পী স্বপন দত্ত কে পুষ্পস্তবক দিয়ে সম্মান জানানো হয় এবং দুস্থ এই বাউল শিল্পীর হাতে মাক্স সহ খাদ্য দ্রব্য ও মুড়ি তুলে দেওয়া হয় ।

সকল শিল্পীদের পক্ষ থেকে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এর সম্মানিত শিল্পী স্বপন দত্ত বাউল তার মূল্যবান বক্তব্যে বলেন শিল্পীদের কথা ওনারা ভেবেছেন এর জন্য শিল্পীরা চির ঋণী হয়ে থাকবে । আমাদের সত্যি এখুন কোনো অনুষ্ঠান নেই কোনো রুজি রোজগার নেই ঠিক সেই সময় আমাদের অন্ন দাতা হয়ে পাশে দাঁড়ালেন বর্ধমান আর্টিস্ট ফোরাম । বর্ধমান আর্টিস্ট হেল্প ফোরাম কে লাখো লাখো সালাম , প্রনাম ও কুর্নিশ শিল্পীদের পক্ষ থেকে। আর্টিস্ট ফোরামের সেক্রেটারি মুহাম্মদ নাজমুল ইসলাম চন্দন বাবু বলেন যে দুস্থ শিল্পীদের কথা তেমন করে কেউ ভাবে না এই লক ডাউনে তাদের কষ্টের কথা অভাবের কথা ভেবেই আমরা কয়েকজন মিলে এই আর্টিস্ট ফোরাম তৈরি করে শিল্পীদের পাশে কয়েকদিন ধরেই দাঁড়িয়ে আসছি । আজ বর্ধমানের রবীন্দ্রভবনে আমরা বড় করে খাদ্য দ্রব্য বিলি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে শিল্পীদের হাতে তুলে দিতে পেরে আমরা নিজেদের ধন্য মনে করছি। অসহায় শিল্পীরা আমাদের সকলেই আশির্বাদ করেছেন এবং বর্ধমানের মানুষ আমাদের এই কাজে উৎসাহ দিয়ে আমাদের অনুপ্রাণিত করেছেন।। আমরা সবসময় শিল্পীদের পাশে আছি ও থাকব শুধু মাঝে মাঝে খাদ্য দ্রব্য দেওয়া শুধু নয় আমরা তাদের অসুখ বিসুখেও নানা ভাবে পাশে দাঁড়ানোর পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি ।। এ প্রসঙ্গে রাষ্ট্রপতির আশীর্বাদ ধন্য ও আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন শিল্পী স্বপন দত্ত বাউল বলেন আমি সারা রাজের জেলায় জেলায় নিঃস্বার্থ সমাজ সচেতনে ঘুড়ে বেড়াই কিন্তূ এই লক ডাউনে কঠিন পরিস্থিতিতে বর্ধমান আর্টিস্ট হেল্ফ ফোরাম এর দুস্থ শিল্পীদের সকলের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়া কে আমি মনে করছি যেন আমরা আকাশের চাঁদ কে হাতে পেলাম । এর আগে দুস্থ সকল শিল্পীদের জন্য কোনো সংস্থা এমন ভাবে এগিয়ে আসে নি বর্ধমানে । তাই সকল শিল্পীর কাছেই আজ বর্ধমান আর্টিস্ট হেল্ফ ফোরাম একটা আকাশের চাঁদ ।তাইতো তারা আজ রবীন্দ্রভবনে চাঁদের হাট বসিয়ে ছিলো শিল্পী দের নিয়ে, তাদের মুখে খাদ্য দ্রব্য তুলে দিয়ে শিল্পী দের মুখে চাঁদের মত হাসি ফুটিয়ে তুললো ।।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button