জেলা

মারিশদা থানার শিল্লীবাড়ী এলাকার প্রায় ৯৩ জনের হাতে রান্না করা খাদ্য তুলে দিল পুলিশ।

প্রদীপ কুমার মাইতি,পূর্ব মেদিনীপুর ঃ রাজ্যজুড়ে করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে ঘরবন্দী সকলে। কলকারখানা, যানবাহন, দোকানপাট, হোটেল সমস্ত কিছু একেবারেই বন্ধ। এমন পরিস্থিতিতে দিন আনা দিন খাওয়া মানুষের একেবারে করুন অবস্থা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ফলে দীন দরিদ্র মানুষ এক বেলা খেতে পেলে অপরবেলা কি খাবে তা নিয়ে ভাবতে হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে এবার এগিয়ে এলো পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মারিশদা থানার পুলিশ। মঙ্গলবার মারিশদা থানার শিল্লীবাড়ী এলাকার প্রায় ৯৩ জনের হাতে রান্না করা খাদ্য তুলে দেওয়া হয় পুলিশের তরফ থেকে। পাশাপাশি বেশকিছু অসহায় ভবঘুরেদের রান্না খাওয়ার তুলে দেওয়া হয়েছে। এ দিন মারিশদা থানার ওসি অমিত দেব এর নেতৃত্বে এলাকার সমস্ত দিন দরিদ্র দুস্থ মানুষদের হাতে রান্না করা খাদ্য তুলে দেওয়া হয়।  সরকারি নিয়ম মেনে হাতে স্যানিটাইজার মুখে মাক্স পরে এদিন খাদ‍্য বিলি করা হয়। পাশাপাশি মারিশদা থানা চত্বরে স্যানিটাইজ করা হয়। মারিশদা থানার ওসি অমিত দেব বলেন, “লকডাউনের সময় খেটে খাওয়া মানুষের একেবারে করুন অবস্থা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে দুঃস্থ মানুষদের হাতে আমরা খাদ্যসামগ্রী তুলে দিলাম। আমরা সাধারন মানুষের পাশে রয়েছি। লকডাউন না ওঠা পর্যন্ত তাঁদের মুখে আমরা দু’বেলা অন্ন তুলে দেব।” তবে পুলিশের মানবিক উদ্যোগকে খুবই প্রশংসাকে করে স্থানীয় এলাকার বাসিন্দারা।

Related Articles

Leave a Reply

Back to top button