রাজ্য

অভিনব মাস্ক বানিয়ে চমক চড়িদার মুখোশ শিল্পীদের

অভিনব মাস্ক বানিয়ে চমক চড়িদার মুখোশ শিল্পীদের

পুরুলিয়া : “চড়িদা গ্রাম” নামটা সকলেরই জানা। এই চড়িদা গ্রাম বিশ্ব দরবারে ছৌ মুখোশ গ্রাম বলে পরিচিত। এখানে শুধু ছৌ মুখোশই তৈরী হয় না পাশাপাশি বাড়ি সাজানোর নানারকম মুখোশ তৈরী হয়। এই গ্রামটি জঙ্গলমহল পুরুলিয়া জেলার বাঘমুন্ডি ব্লকের সুন্দরী অযোধ্যা পাহাড়ের কোলে অবস্থিত। পর্যটকেরা পুরুলিয়ার পর্যটনকেন্দ্রে ঘুরতে এলে তারা এই মুখোশ গ্রামও ঘুরে যায়। সারাবছর এই গ্রামে পর্যটকদের আনাগোনা। কিন্তু বর্তমানে করোনা অতিমারির ভয়াবহ পরিস্থিতিতে পর্যটক শূন্য পুরুলিয়া। তাই মুখোশ বিক্রির দিক থেকে মুখোশ দোকানে একেবারেই শূন্য। অন্যদিকে, ছৌ নৃত্য বন্ধ থাকার ফলে ছৌ মুখোশও বিক্রির কোনো পথ নেই। গ্রামের মুখোশ শিল্পিদের রুটি-রোজকার একেবারেই বন্ধ তাই বাড়িতে বসে বসে তারা এই মহামারীর পরিস্থিতিতে এক অভিনব মুখোশ-মাস্ক তৈরীর পথ বেছে নিলেন। যেমন ভাবে মুখোশ তৈরী হয় ঠিক তেমনি করেই এরকম মুখোশ-মাস্ক তৈরী করলেন। পুরুষ ও মহিলাদের জন্য আলাদাভাবে মাস্ক তৈরী করেছেন।

এই অভিনব মাস্ক সম্বন্ধে শিল্পিদের কাছ থেকে জানা গেছে , এই মহামারীর পরিস্থিতিতে আমরা রুটি-রোজকারের জন্য এই মাস্ক বানানোর পথ বেছে নিয়েছি। এই মাস্কগুলি ঝাড়খণ্ডে বেশি চাহিদা পেয়েছে। আমরা এই মাস্ককে জনসাধারণের কাছে আকর্ষণীয় করে তুলতে আমাদের এমন ভাবনা। এই পরিস্থিতিতে সরকার যেনো আমাদের পাশে দাঁড়ায়।

Related Articles

Back to top button